প্রেমের টানে মসজিদের ইমামের সাথে পালিয়ে গেল প্রবাসীর বউ

প্রেমের টানে মসজিদের ইমামের সাথে পালিয়ে গেল প্রবাসীর বউ

বি: দ্র : ই্উটিউব থেকে প্রকাশিত সকল ভিডিওর দায় সম্পুর্ন ই্উটিউব চ্যানেল এর ।

এর সাথে আমরা কোন ভাবে সংশ্লিষ্ট নয় এবং আমাদের পেইজ কোন প্রকার দায় নিবেনা।
ভিডিওটির উপর কারও আপত্তি থাকলে তা অপসারন করা হবে। প্রতিদিন ঘটে যাওয়া নানা রকম ঘটনা আপনাদের মাঝে তুলে ধরা এবং সামাজিক সচেতনতা আমাদের লক্ষ্য এবং উদ্দেশ্য ।

ভিডিও: https://www.youtube.com/watch?v=6MyphaIZ2zE

আরও পড়ুন…

আপনার যে ১৫ টি ভুল আচরণে প্রিয় মানুষ’টি চলে যাচ্ছেন দূরে

সম্পর্ক ভাঙে, সম্পর্ক গড়ে। এর মাঝ দিয়েই তো আমাদের বেঁচে থাকা। দিন যাপনের আয়োজনে প্রায়ই তিল তিল করে প্রিয় মানুষটি সরে যেতে শুরু করে দূরে। সেই প্রিয় মানুষ হতে পারে স্বামী কিংবা স্ত্রী, হতে পারে প্রেমিকা কিংবা প্রেমিকা। সেই দূরত্ব আমাদের ভোগায়, কষ্ট দেয়। দূরত্ব বাড়তে বাড়তে এক সময়ে হয়তো সম্পর্কটাই শেষ হয়ে যায়। কিন্তু কখনো কি ভেবেছেন, কেন শেষ হয়ে যায় এত আপন সম্পর্কটি? এক কালের ভালোবাসার মানুষটি কেন আজ অন্য ভুবনের বাসিন্দা?

উত্তর লুকিয়ে আছে আপনার মাঝেই। উত্তর লুকিয়ে আছে আপনার আচরণের মাঝেই। চলুন, জেনে নিই সেই অলক্ষ্যে রয়ে যাওয়া কথাগুলো।

১। আপনার কাছে সময় নেই। আপনি সর্বদাই নিজেকে নিয়ে ব্যস্ত আর আত্মকেন্দ্রিক। প্রিয় মানুষটিকে তখনই ডাকেন যখন আপনার ইচ্ছে। এমন হলে তো সম্পর্ক ভাঙবেই!

২। আপনার প্রিয় মানুষটি আপনার পেছনে খরচ করেন, আপনি কখনোই না। ব্যাপারটা এমন হয়ে দাঁড়িয়েছে যে তাঁকে আপনার প্রয়োজন কেবল টাকার জন্যেই। এমন হলে এক সময়ে সম্পর্কে ভাঙন আসেই।

৩। আপনি তাঁকে শারীরিক বা মানসিক নির্যাতন করেন নানান কৌশলে। কখনো কখনো নিজের অজান্তেই।

৪। আপনি অলস, আগোছালো ও নোংরা। এমন একজন মানুষকে কেউই দীর্ঘদিন ভালবাসতে পারে না।

৫। জীবন সম্পর্কে আপনি একটুও সচেতন নন। জীবন নিয়ে আপনার কোন গোছানো পরিকল্পনা নেই, ভবিষ্যৎ নিয়ে আপনার কোন ভাবনা নেই, জীবনের কোন লক্ষ্য নেই। মোটকথা বয়সের সাথে সাথে আপনার ম্যাচিউরিটি বাড়ে নি।

৬। আপনি বিয়ের জন্য মানসিক চাপ প্রয়োগ করছেন।

৭। আপনি নানান ভাবে তাঁকে ইমোশনাল ব্ল্যাকমেইল করার চেষ্টা করেন। করে নিজের দোষ ঢাকেন বা বাড়তি সুবিধা আদায় করেন।

৮। আপনি অতিরিক্ত রাগী। নিজের রাগের ওপরে আপনার নিয়ন্ত্রণ নেই।

৯। আপনি প্রায়ই এমন কিছু বলেন বা করেন যাতে প্রিয় মানুষটিকে অপমান করা হয়। আপনি তাঁকে খোঁটা দিয়ে কথা বলেন, তাঁকে ছোট করার চেষ্টা করেন।

১০। আপনি তাঁর প্রশংসা করেন না। তিনি আপনার জন্য যা যা করছে সেটার জন্য ধন্যবাদ জ্ঞাপন করেন না। তাঁর প্রায়ই নিজেকে অবহেলিত মনে হয়।

১১। আপনি অতিরিক্ত নারীবাদি বা পুরুষবাদি। এতটাই বেশি যে সেটা আপনার সম্পর্কের ওপরে প্রভাব ফেলছে, যুক্তিতর্ককে আপনারা সম্পর্কের বাইরে রাখতে পারছেন না।

১২। আপনার ইগো এবং আদর্শের সাথে তাঁর মতামতের সংঘাত।

১৩। আপনাদের সম্পর্কে এখন আর কোন সুন্দর মুহূর্ত উপস্থিত নেই। যা আছে তা কেবলই সমস্যা ও ঝগড়া।

১৪। আপনার পরিবারের আচরণে তিনি তিক্ত-বিরক্ত বা ব্যথিত। এবং আপনাকে পাশে না পেয়ে তিনি হতাশ।

১৫। অন্য নারী বা পুরুষদের সাথে আপনার ফ্লার্টিং।

কেবল এগুলোই নয়, সম্পর্ক ভাঙার জন্যে দায়ী আরও হাজারো কারণ। সম্পর্ক থেকে সম্পর্কে কারণগুলো ভিন্ন। তবে এই কারণগুলিও নারী-পুরুষ নির্বিশেষে সত্য বৈকি।

আরএম-০৯/১৫/০৮ (লাইফস্টাইল ডেস্ক)